রবি খোঁজ দ্য নাম্বার ওয়ান স্পিনারের নাম নাইম

1491834255

খেলারহাট ডেস্ক:
ফেব্রুয়ারিতে শুরু হওয়া ‘রবি খোঁজ দ্য নাম্বার ওয়ান স্পিনার’ ক্যাম্পেইন আজ অনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়েছে। ‘রবি খোঁজ দ্য নাম্বার ওয়ান স্পিনার ক্যাম্পেইন ২০১৭’ তে যিনি প্রথম হয়েছেন তার নাম নাঈম আহমেদ। নাঈম সিলেট গোলাপগঞ্জের ছেলে। খেলতেন স্থানীয় ক্লাব ‘ইউনিটি’তে। তিনি ক্লাবটির অধিনায়কও বটে। ইউনিটি ক্লাবটি টেপ টেনিস বলে খেলে থাকে। ক্লাবের বাদ বাকি সদস্যদের মতো তিনিও তার ব্যতিক্রম ছিলেন না । মজার বিষয় হলো ১৯ বছর বয়সী এ অফস্পিনার স্পিনার হান্ট ক্যাম্পেইন শুরুর আগে কখনো কাঠের ক্রিকেট বল হাতে নেননি। ছ’ফুটের বেশী উচ্চতার এ স্পিনারের আদর্শ ভারতীয় অফস্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

গোলাপগঞ্জের স্থানীয় ইউনিটি ক্রিকেট ক্লাবে টেপ টেনিস বলে খেলতেন নাঈম। ওই ক্লাবের এক বড়ভাইয়ের মাধ্যমে একদিন আগে জানতে পারেন স্পিনার হান্টের খবর। রাতে লাইট জ্বালিয়ে প্রথমবার ক্রিকেট বলে অনুশীলন করেন।

সেরা হতে পেরে উচ্ছ্বসিত নাঈম বলেন, স্পিনার হান্ট শুরুর এক দিন আগে এলাকার এক বড় ভাইয়ের মাধ্যমে আমি এর খবর জানতে পারি। এ পর্যন্ত আসার পেছনে তাদের অবদান এবং আমার ক্লাবের অবদান সবচেয়ে বেশি। সাকিব (সাকিব আল হাসান) ভাইয়ের গ্রিপ ফলো করি। সাকিব ভাই তো বাঁ-হাতি এ জন্য তার সবকিছু ফলো করার সুযোগ তেমন নেই। আমার আইডল রবিচন্দ্রন অশ্বিন। বোলিংয়ে ভ্যারিয়েশনের দিক থেকে সেরা হয়েছেন সিলেটের নাঈম হোসেন সাকিব। অ্যাকুরিসি ও কনসিসটেনসি দেখিয়ে সেরা হয়েছেন লেগস্পিনার রিসাত হোসেন।

আজ মিরপুরের বিসিবি একাডেমি মাঠে স্পিনার হান্টের সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিসিবির গেম ডেভলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ সুজন, মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস, মাকেটিং কমিটির চেয়ারম্যান কাজী ইনাম আহমেদ, ফ্যাসিলিটিজ কমিটির চেয়ারম্যান লোকমান হোনে ভুইয়া এবং পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান রবি’র মতিউল ইসলাম নওশাদ। বিজয়ীদের ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও প্রাইজমানির বিশহাজার টাকার ডামি চেক তুলে দেন অতিথিরা।

সেরা ১০ বিজয়ীর মধ্যে লেগ স্পিনার পাঁচজন, বাঁ-হাতি স্পিনার তিনজন ও চায়নাম্যান স্পিনার দুইজন। মেয়েদের বিভাগে সেরা হয়েছেন সুলতানা খাতুন। সুলতানা এর আগে প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লিগে অংশ নিয়েছেন। ফিজিক্যাল চ্যালেঞ্জড বিভাগে সেরা হয়েছেন মোহাম্মদ নাসিম। বিজয়ীদের একাডেমির বিভিন্ন কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হবে বলে জানান বিসিবি পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। দেশব্যাপী জেলা ক্রীড়া সংস্থাগুলোর সহযোগিতায় ফেব্রুয়ারিতে দেশের ৬৪টি জেলায় মুঠোফোন কোম্পানি রবির পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠিত হয় স্পিনার হান্ট ক্যাম্পেইনের প্রথম পর্ব।

প্রাথমিক পর্ব শেষে ৯২৮ জন ছেলে ও ৭২ জন মেয়ে স্পিনারকে বাছাই করা হয়। পরবর্তীতে তারা ১০টি বিভাগীয় পর্যায়ের শহরগুলোতে আয়োজিত দ্বিতীয়পর্বে অংশগ্রহণ করেন। আর এখান থেকে বাছাইকৃত স্পিনাররাই অংশগ্রহণ করেন ঢাকার মিরপুরে শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তৃতীয় ও চূড়ান্ত পর্বে। বাছাইকৃত সেরা স্পিনারদের জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির অধীনে এনে তাদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান বাংলাদেশ ক্রিকেটের মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, ১০ হাজারের মধ্যে যে ১০ জন এখানে এসেছে তাদের মধ্যে অবশ্যই ট্যালেন্ট আছে। যেহেতু তাদের একটি প্ল্যাটফর্ম লাগবে সেহেতু আমরা অবশ্যই একাডেমিতে রেখে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবো।

সেরা দশ : নাঈম আহমেদ (নাম্বার ওয়ান স্পিনার), হাসান মুরাদ, নাইমুর রহমান নয়ন, সাদি মুহম্মদ, আখতার উজ্জামান, দিদার হোসেন, নাঈম হোসেন সাকিব, রিশাত হোসেন, রায়হান মোস্তফা, আশরাফুল কবির তানজিল। নারী ক্যাটাগরি: সুলতানা খাতুন।
সূত্র: বাসস

খেলারহাট ডটকম/ টিআই

Copyright © 2017 khelarhaat.com all rights reserved. Developed by Website11