লর্ডসে এবার ওয়ানডের জন্যও অনার্স বোর্ড

tamimm_311490
খেলারহাট ডেস্ক:
লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টেস্ট ম্যাচের অসাধারণ পারফরম্যান্সকে স্বীকৃতি দিয়ে আসছিল মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। এবার ওয়ানডে ক্রিকেটের জন্যও এটি চালু করতে যাচ্ছে লর্ডস। আগামী দিনগুলোতে ওয়ানডের মাইলফলকগুলোও অনার্স বোর্ডে জায়গা পাবে।

পুরুষদের মতো, নারী ক্রিকেটারদরও লর্ডসের অনার্স বোর্ডে স্থান দেয়া হবে। ঊনবিংশ শতাব্দীর শেষের দিক থেকে লর্ডস টেস্টে কোনো বোলার ৫ উইকেট পেলে কিংবা সেঞ্চুরি করলে অনার্স বোর্ডে তার নাম খোদাই করা হয়। এবার ওয়ানডেতে কোনো বোলার ৫ উইকেট পেলে কিংবা কোনো ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করলে তাদের নামও স্থান পাবে অনার্স বোর্ডে।

চলতি সপ্তাহে এমসিসির মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সেখানে ওয়ানডের মাইলফলকগুলোকে অনার্স বোর্ডে স্থান দেয়া হবে বলে ঘোষণা দেয়া হয়। পুরুষ এবং নারী ক্রিকেটে কোনো বৈষম্য করা হবে না বলে জানায় এমসিসি।

চলতি সপ্তাহে লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নারী বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জয় করে ইংল্যান্ডের মেয়েরা। ফাইনালে ৪৬ রানে ৬ উইকেট নেয়া আনা স্রাবসোলের নাম অনার্স বোর্ডে জায়গা পাবে বলেই মনে হচ্ছে।

টেস্টে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে বাংলাদেশের দুই খেলোয়াড় লর্ডসের অনার্স বোর্ডে জায়গা করে নেন। ২০০৯ সালে লর্ডস টেস্টে ৯৮ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেয়ায় বাংলাদেশি পেসার শাহাদাত হোসেনের নাম অনার্স বোর্ডে স্থান করে নেয়। পরের বছর লর্ডস টেস্টে তামিম ইকবাল ১০৩ রানের দারুণ ইনিংস খেলে অনার্স বোর্ডে নাম ওঠান। সাত বছর আগে ক্রিকেটের তীর্থ ভূমিতে সেঞ্চুরি করে উদযাপনের জন্য তামিম যেই লাফ দিয়েছিলেন সেটি এখনো বাংলাদেশি দর্শকদের হৃদয়ে গেঁথে আছে।
খেলারহাট ডটকম/ টিআই

Copyright © 2017 khelarhaat.com all rights reserved. Developed by Website11